Register!

ঘরে বসেই লাইভ ভিডিওতে
মাত্র ৩০০০/- টাকায়

লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতি!

ভর্তি হতে কল করুন : 01712-908561

প্রসঙ্গ : নিন্দনীয় নরহত্যা ও খুন [২৯৯ ও ৩০০ ধারা]

[লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতি, ২০২০]

[লেখকের নোট : ২৯৯ এবং ৩০০ ধারা ছাত্রজীবনের সবচেয়ে কনফিউশনের বিষয়। এই বিষয় নিয়ে যারপরনাই ঝামেলা পোহাতে হয় শিক্ষার্থীদের। অবশেষে, মুখস্থ বিদ্যায় কেউ কেউ উতরে যায়; কেউ পালিয়ে বা এড়িয়ে যায়! আমি নিজেও যতোদিন এর কেরামতি বুঝিনি, ততোদিন ফাঁকি দিয়ে এই টপিকেরই অন্যান্য বিষয়বস্তু বুঝিয়ে বুঝিয়ে গেছি।

বস্তুত, এই টপিকে বোঝানোর মতো করে হাতে ধরে ধরে কেউ বুঝিয়েছে, এমন শিক্ষকের দেখা পাইনি। বহু জায়গায় [যারা পেনাল কোড পড়িয়ে অভ্যস্ত তাদের কাছে] জিজ্ঞেস করেও আকাঙ্ক্ষিত ভাষায় উত্তর পাইনি। আমরাতো কোন ছার! একজন গুরুত্বপূর্ণ লেখক ও আইনবিদ, স্যার জেমস ফিটজ জেমস, যিনি কিনা তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের পঞ্চম আইন কমিশনের মাধ্যমে এটির সংশোধনীর প্রস্তাব করেছিলেন ১৮৮৩ সালে [সংশোধিত হয়েছিলো না]; তিনি এটি সম্পর্কে বলেছিলেন যে এভাবে –

‘The definitions of culpabale homicide and murder are, I think, the weakest part of the Code. They are obscure, and it is obvious to me that the subject has not been fully thought out when they were drawn. Culpable homicide is first defined, but Homicide is not defined at all, except by way of explanation to culpable homicide. Moreover, culpable homicide, the genus, and murder, the species, are defined in terms so closely resembling each other that it is difficult to distinguish them… The difficulty of these sections is that the definitions of culpable homicide and murder all but repeat each other, but not quite, or at least, not explicitly.’

গুরুকে মাথায় রেখে আত্মবিশ্বাসের সাথেই বলছি যে, এটিকে সামান্য নতুনরূপে হাজির করেছি আপনাদের সামনে। কোনো কোনো ব্যাখ্যা একেবারেই নতুন; কারো বইয়েই নেই। দুঃখিত, কারো গাইড বইয়ের কথা দুর কি বাত; একাডেমিক বইগুলোর লেখালেখির কথাই বলছি, যাদেরকে সবাই আইন লেখকদের জগতে গুরু মানেন! আমার এই অতি সাহসী বক্তব্যগুলোর কারো মনে ধরলে পড়েন; নাইলে ছেড়ে দেন আমাকে। এসব নিয়ে বিস্তারিত লেখা নিয়ে আসবো পরে। আপাতত, সামনে পরীক্ষা। ৯ ও ১০ নং প্রশ্নের উত্তর দুইটি মনোযোগ দিয়ে পড়লে [নির্দেশনার অংশটুকুসহ] এবং ২৯৯ ও ৩০০ ধারার বক্তব্য মিলিয়ে পড়ে নিলে স্পষ্ট হয়ে যাবে আশা করি। কথা আর না বাড়াই। ধন্যবাদ। হ্যাপি রিডিং! :)]

নিন্দনীয় নরহত্যা ও খুন প্রসঙ্গ [২৯৯ ও ৩০০ ধারা]

ধারা ২৯৯ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা [Culpable homicide] : কোনো ব্যক্তি যদি মৃত্যু ঘটাবার উদ্দেশ্য নিয়ে কৃত কোনো কাজ কর্তৃক মৃত্যু ঘটায়, অথবা যে দৈহিক জখম মৃত্যু ঘটাতে পারে, তেমন দৈহিক জখম ঘটাবার উদেশ্য নিয়ে কৃত কোনো কাজের সংঘটন কর্তৃক মৃত্যু ঘটায়, অথবা যে কাজ মৃত্যু ঘটাতে পারে বলে সে জানে, সে কাজ সম্পাদন কর্তৃক মৃত্যু ঘটায়, তবে সেই ব্যক্তি শাস্তিযোগ্য নরহত্যার দোষে দোষী হবে [Whoever causes death by doing an act with the intention of causing death, or with the intention of causing such bodily injury as is likely to cause death, or with the knowledge that he is likely by such act to cause death, commits the offence of culpable homicide.]

উদাহরণসমূহ [Illustrations]
(ক) ক একটি কূপের মুখে আড়াআড়িভাবে বাঁশের কঞ্চি পেতে তার উপর ঘাস পাতা বিছিয়ে দেয়Ñ এই উদ্দেশ্যে যে, তাতে মৃত্যু ঘটতে পারে অথবা তাতে যে মৃত্যু ঘটতে পারে তা জানা সত্ত্বেও তা করে। চ শক্ত মাটি মনে করে উহার উপর দিয়ে চলতে গিয়ে কৃপের ভিতর পড়ে যায় এবং নিহত হয়। ক শাস্তিযোগ্য নরহত্যার অপরাধ করেছে। [A lays sticks and turf over a pit, with the intention of thereby causing death, or with the knowledge that death is likely to be thereby caused. Z, believing the ground to be firm, treads on it, falls in and is killed. A has committed the offence of culpable homicide.]

(খ) একটি ঝোপের একপাশে ক ও খ রয়েছে এবং অন্য পাশে চ রয়েছে ক জানে যে, চ অন্য পাশে রয়েছে, কিন্তু খ তা জানে না। ঝোপের দিকে গুলিবর্ষণ করলে যাতে চ-এর মৃত্যু হয় সে উদ্দেশ্যে অথবা অনুরূপ গুলিবর্ষণ করলে চ-এর মৃত্যু হতে পারে বলে জানা সত্ত্বেও, ক ঝোপের দিকে গুলিবর্ষণ করার জন্য খ-কে অনুরোধ করে। খ অনুরোধ রক্ষা করে গুলিবর্ষণ করে এবং তার গুলিবর্ষণের ফলে চ এর মৃত্যু হয়। এইক্ষেত্রে খ কোনো দোষে দোষী না হতে পারে, কিন্তু ক শাস্তিযোগ্য নরহত্যার অপরাধ করেছে। [A knows Z to be behind a bush. B does not know it. A, intending to cause, or knowing it to be likely to cause Z’s death induces B to fire at the bush. B fires and kills Z. Here B may be guilty of no offence; but A has committed the offence of culpable homicide.]

(গ) ক একটি মুরগি হত্যা করে উহা চুরি করার উদ্দেশ্যে উহার প্রতি গুলিবর্ষণ করে, কিন্তু গুলিবর্ষণের ফলে ঝোপের অন্য পাশে খ-এর মৃত্যু হয়। ক জানত না যে, খ সেখানে ছিলো। এই ক্ষেত্রে ক যদিও একটি বেআইনি কাজই করছিল, তথাপি সে শাস্তিযোগ্য নরহত্যার দোষে দোষী নয়, কেননা সে খ-কে হত্যা করতে চায় নাই, অথবা যে কার্য মৃত্যু ঘটাতে পারে বলে সে জানে, জ্ঞাতসারে সে কার্য করে সে মৃত্যু ঘটায় নাই। [A, by shooting at a fowl with intent to kill and steal it, kills B, who is behind a bush; A not knowing that he was there. Here, although A was doing an unlawful act, he was not guilty of culpable homicide, as he did not intend to kill B or cause death by doing an act that he knew was likely to cause death.]

ব্যাখ্যা ১ : যে ব্যক্তি অসুস্থতা, রোগ বা দৈহিক অপারগতায় ভুগতেছে, তার দৈহিক জখম করে মৃত্যু ত্বরান্বিত করলে তার মৃত্যু ঘটাবার অপরাধ হয়েছে বলে বিবেচনা করা হবে। [A person who causes bodily injury to another who is labouring under a disorder, disease or bodily infirmity, and thereby accelerates the death of that other, shall be deemed to have caused his death.]

ব্যাখ্যা ২ : যখন দৈহিক আঘাত বা জখমের কারণে মৃত্যু ঘটে, তখন যে ব্যক্তি অনুরূপ দৈহিক আঘাত বা জখম ঘটায়, সে ব্যক্তি মৃত্যু ঘটিয়েছে বলে বিবেচনা করা হবে, যদিও যথোচিত প্রতিকারের ও সুনিপুণ চিকিৎসার ফলে সে মৃত্যু রোধ করা যেত। [Where death is caused by bodily injury, the person who causes such bodily injury shall be deemed to have caused the death, although by resorting to proper remedies and skilful treatment the death might have been prevented.]

ব্যাখ্যা ৩ : মাতৃগর্ভে কোনো শিশুর মৃত্যু ঘটানো নরহত্যা নয়। কিন্তু যদি কোনো শিশুর (দেহের) কোনো অংশ নিষ্ক্রান্ত করার পর জীবিত শিশুটির মৃত্যু ঘটানো হয়, তবে তা শাস্তিযোগ্য নরহত্যা বলে পরিগণিত হবে, যদিও শিশুটি শ্বাসপ্রশ্বাস গ্রহণ না করে থাকে অথবা সম্পূর্ণরূপে ভূমিষ্ঠ না হয়ে থাকে। [The causing of the death of a child in the mother’s womb is not homicide. But it may amount to culpable homicide to cause the death of a living child, if any part of that child has been brought forth, though the child may not have breathed or been completely born.]

ধারা ৩০০ : খুন [Murder] : সে সকল ক্ষেত্র ব্যতীত অন্যান্য সকল ক্ষেত্রে শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুন হবে, যদি যে কার্যটি কর্তৃক মৃত্যু অনুষ্ঠিত হয়, সে কার্যটি মৃত্যু সংঘটনের জন্যই করা হয়ে থাকে [Except in the cases hereinafter excepted, culpable homicide is murder, if the act by which the death is caused is done with the intention of causing death], অথবা

দ্বিতীয়ত, যদি কার্যটি কোনো ব্যক্তিকে এমনভাবে দৈহিক আঘাত দেওয়ার উদ্দেশ্যে করা হয়ে থাকে, যে আঘাতের ফলে যে ব্যক্তিকে আঘাত দেওয়া হল, সে ব্যক্তির মৃত্যু হতে পারে বলে অপরাধী জানে। [Except in the cases hereinafter excepted, culpable homicide is murder, if the act by which the death is caused is done with the intention of causing death], অথবা

তৃতীয়ত, যদি কোনো ব্যক্তিকে দৈহিক আঘাত দানের উদ্দেশ্যে কার্যটি করা হয় এবং যদি যে দৈহিক আঘাত দেওয়ার অভিসন্ধি করা হয়েছে, সে আঘাতটি প্রকৃতির স্বাভাবিক গতিতে মৃত্যু ঘটাবার পক্ষে যথেষ্ট হয় [If it is done with the intention of causing bodily injury to any person and the bodily injury intended to be inflicted is sufficient in the ordinary course of nature to cause death], অথবা

চতুর্থত, যদি যে ব্যক্তি কার্যটি অনুষ্ঠান করে সে ব্যক্তি জানে যে, কার্যটি এমন আশু বিপজ্জনক যে, ইহার দরুন খুব সম্ভব মৃত্যু ঘটবে, অথবা ইহার দরুন অবশ্যই এমন দৈহিক আঘাত ঘটবে, যার ফলে মৃত্যু ঘটতে পারে এবং মৃত্যু ঘটাবার বা অনুরূপ দৈহিক আঘাত ঘটাবার ঝুঁকি গ্রহণের অপর কোনো অজুহাত ব্যতিরেকে অনুরূপ কার্য করে [If the person committing the act knows that it is so imminently dangerous that it must, in all probability, cause death, or such bodily injury as is likely to cause death, and commits such act without any excuse for incurring the risk of causing death or such injury as aforesaid]।

উদাহরণসমূহ [Illustrations]

ক. ক চ-কে নিহত করার উদ্দেশ্যে তার প্রতি গুলিবর্ষণ করে ফলে চ-এর মৃত্যু হয়। ক খুন করেছে। [A shoots Z with the intention of killing him. Z dies in consequence. A commits murder.]

খ. ক জানে যে, চ এমন একটি রোগে ভুগতেছে যে, একটি মাত্র আঘাতই তার মৃত্যু ঘটাতে পারে। এটা জানা সত্ত্বেও ক চ-কে দৈহিক আহত করার উদ্দেশ্যে তাকে আঘাত করে, এই আঘাতের ফলে চ-এর মৃত্যু ঘটে। ক খুনের অপরাধে অপরাধী সাব্যস্ত হবে, যদিও অনুরূপ আঘাত কোনো স্বাভাবিক স্বাস্থ্য সম্পন্ন লোকের প্রকৃতির নিয়মের মৃত্যু ঘটাবার পক্ষে পর্যাপ্ত ছিলো না। কিন্তু চ-এর যে এমন একটি রোগ রয়েছে, তা যদি ক-এর জানা না থাকে এবং সে অবস্থায় এমন একটি আঘাত দেয়, যার ফলে স্বাভাবিক স্বাস্থ্যবান ব্যক্তির মৃত্যু ঘটতে পারে না, তবে ক যদিও দৈহিক আঘাত দেওয়ার জন্যই আঘাতটি দিয়েছে, তবুও সে খুনের জন্য অপরাধী সাব্যস্ত হবে না, যদি না সে মৃত্যু ঘটাবার উদ্দেশ্যেই অথবা যে আঘাতের ফলে প্রকৃতির স্বাভাবিক গতিতে মৃত্যু ঘটতে পারে, সে আঘাত দানের উদ্দেশ্যে আঘাতটি দিয়ে থাকে। [A, knowing that Z is labouring under such a disease that a blow is likely to cause his death, strikes him with the intention of causing bodily injury. Z dies in consequence of the blow. A is guilty of murder, although the blow might not have been sufficient in the ordinary course of nature to cause the death of a person in a sound state of health. But if A, not knowing that Z is labouring under any disease, gives him such a blow as would not in the ordinary course of nature kill a person in a sound state of health, here A, although he may intend to cause bodily injury, is not guilty of murder, if he did not intend to cause death or such bodily injury as in the ordinary course of nature would cause death.]

গ. ক উদ্দেশ্যমূলকভাবে চ-কে এমন একটি তরবারীর কোপ অথবা লাঠির আঘাত দেয়, যা স্বাভাবিকভাবে কোনো ব্যক্তির মৃত্যু ঘটাবার পক্ষে যথেষ্ট। ফলে চ-এর মৃত্যু হয়। এই ক্ষেত্রে ক খুনের জন্য অপরাধী সাব্যস্ত হবে, যদিও সে চ-এর মৃত্যু ঘটাতে চায় নাই [A intentionally gives Z a sword-cut or club-wound sufficient to cause the death of a man in the ordinary course of nature. Z dies in consequence. Here A is guilty of murder, although he may not have intended to cause Z’s death.]

ঘ. ক কোনো অজুহাত ব্যতীত জনতার প্রতি একটি গুলি ভর্তি কামান হতে গুলিবর্ষণ করে এবং জনতার একজনকে হত্যা করে। ক খুনের দায়ে অপরাধী সাব্যস্ত হবে, যদিও কোনো বিশেষ ব্যক্তিকে নিহত করার জন্য তার কোনোরূপ পূর্ব-পরিকল্পিত অভিসন্ধি ছিলো না [A without any excuse fires a loaded cannon into a crowd of persons and kills one of them. A is guilty of murder, although he may not have had a premeditated design to kill any particular individual.]

যেক্ষেত্রে শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুন পরিগণিত হবে না (When culpable homicide is not murder)
ব্যতিক্রম ১ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুনের সামিল হবে না, যদি মারাত্মক ও আকস্মিক প্ররোচনার ফলে অপরাধী আত্মসংযমশক্তি হারাইয়া ফেলে এবং যে ব্যক্তি প্ররোচনা দান করেছে, সে ব্যক্তির মৃত্যু ঘটায় অথবা ভুলক্রমে বা দুর্ঘটনাক্রমে অপর কোনো ব্যক্তির মৃত্যু ঘটায় [Culpable homicide is not murder if the offender, whilst deprived of the power of self-control by grave and sudden provocation, causes the death of the person who gave the provocation or cause the death of any other person by mistake or accident.]

উপরোক্ত ব্যতিক্রমটি নিম্নক্ত শর্তাবলী সাপেক্ষে :
প্রথমত, প্ররোচনাটি কোনো ব্যক্তিকে হত্যা করার বা তার ক্ষতি সাধনের অজুহাতস্বরূপ অপরাধী কর্তৃক স্বয়ং প্রার্থীত বা প্ররোচিত হতে পারবে না। [That the provocation is not sought or voluntarily provoked by the offender as an excuse for killing or doing harm to any person.]

দ্বিতীয়ত, উক্ত প্ররোচনাটি আইনানুসারে কৃত কোনো কার্য দ্বারা বা কোনো সরকারি কর্মচারীর সরকারি কর্মচারী হিসেবে যথাযোগ্য ক্ষমতাবলীর আইনসম্মত প্রয়োগসঞ্জাত হতে পারবে না। [That the provocation is not given by anything done in obedience to the law, or by a public servant in the lawful exercise of the powers of such public servant.]

তৃতীয়ত, উক্ত উত্তেজনা ব্যক্তিগত প্রতিরক্ষা অধিকারে আইনানুগ প্রয়োগের ব্যাপারে সম্পাদিত কোনো কার্য দ্বারা হতে পারবে না। [That the provocation is not given by anything done in the lawful exercise of the right of private defence.]

ব্যাখ্যা : প্ররোচনাটি এমন মারাত্মক ও আকস্মিক ছিলো কিনা, যার ফলে অপরাধটি খুনের শামিল হবে না, তা একটি ঘটনাগত প্রশ্ন। [Whether the provocation was grave and sudden enough to prevent the offence from amounting to murder is a question of fact.]

উদাহরণসমূহ [Illustrations]

ক. ক, চ-এর উস্কানিতে উত্তেজিত হয়ে উদ্দেশ্যমূলকভাবে চ-এর শিশু পুত্র ছ-কে নিহত করে, এটা খুন, কেননা, শিশু পুত্রটি উস্কানি দেয় নাই এবং উস্কানির দরুন কৃত কোনো কাজের জন্য দুর্ঘটনাক্রমে বা দুর্ভাগ্যক্রমে শিশুটির মৃত্যু হয় নাই।  [A, under the influence of passion excited by a provocation given by Z, intentionally kills Y, Z’s child. This is murder, inasmuch as the provocation was not given by the child, and the death of the child was not caused by accident or misfortune in doing an act caused by the provocation.]

খ. ছ খ-কে মারাত্মক ও আকস্মিক উস্কানির কারণে ক, ছ-এর প্রতি পিস্তলের গুলিবর্ষণ করে। ছ-র কাছাকাছি চ দাড়িয়ে ছিলো, কিন্তু সে ক-এর দৃষ্টিগোচর ছিলো না এবং চ-কে হত্যা করার ইচ্ছা ক-এর ছিলো না অথবা চ হত্যা হতে পারে বলে ক-এর জানা ছিলো না। কিন্তু ছ-এর প্রতি পিস্তলের গুলিবর্ষণের কারণে চ-এর মৃত্যু হয়। এক্ষেত্রে ক খুনের অপরাধ করে নাই, কেবল দ-নীয় শাস্তিযোগ্য নরহত্যা করেছে। [Y gives grave and sudden provocation to A. A, on this provocation fires a pistol at Y, neither intending nor knowing himself to be likely to kill Z, who is near him, but out of sight. A kills Z. Here A has not committed murder, but merely culpable homicide.]

গ. চ আইনসম্মতভাবে ক-কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের ফলে ক হঠাৎ ও আকস্মিকভাবে উত্তেজিত হয়ে চ-কে হত্যা করে। এটা খুন, কেননা এটা উস্কানির ফলে একজন সরকারি কর্মচারী কর্তৃক তার ক্ষমতা প্রয়োগক্রমে কৃত একটি কাজ। [A is lawfully arrested by Z, a bailiff. A is excited to sudden and violent passion by the arrest, and kills Z. This is murder, inasmuch as the provocation was given by a thing done by a public servant in the exercise of his powers.]

ঘ. ক একজন সাক্ষী, চ একজন ম্যাজিস্ট্রেট। চ-এর সম্মুখে ক সাক্ষ্যদানকালে চ বলেন যে, তিনি ক-এর একটি কথাও বিশ্বাস করেন না। তিনি আরও বলেন যে, ক মিথ্যা শপথ ও সাক্ষ্যদান করছে। এটাতে ক হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে উঠে এবং চ কে হত্যা করে। এটা খুন। [A appears as a witness before Z, a Magistrate. Z says that he does not believe a word of A’s deposition, and that A has perjured himself, A is moved to sudden passion by these words, and kills Z. This is murder.]

ঙ. ক চ-এর নাক ধরে টানার চেষ্টা করে। চ তার আত্মরক্ষার ব্যক্তিগত অধিকার প্রয়োগ করে ক-কে আটক করে যাতে সে (ক) তার (চ-এর) নাক ধরে টানতে না পারে। এটাতে ক হঠাৎ মারাত্মকভাবে উত্তেজিত হয়ে উঠে এবং চ-কে হত্যা করে, এটা খুন, কেননা যে কার্যটি হতে ক উস্কানি পেয়েছে বা উত্তেজিত হয়েছে, সে কার্যটি আত্মরক্ষার ব্যক্তিগত অধিকার প্রয়োগক্রমে অনুষ্ঠান করা হয়েছে। [A attempts to pull Z’s nose. Z, in exercise of the right of private defense, lays hold of A to prevent him from doing so. A is moved to sudden and violent passion in consequence, and kills Z. This is murder, inasmuch as the provocation was given by a thing done in the exercise of the right of private defense.]

চ. চ খ-কে আঘাত করে। এই প্ররোচনায় খ ভয়ংকর উত্তেজিত হয়। খ-এর উত্তেজনার সুযোগে তাকে দিয়ে চ-কে হত্যা করানোর উদ্দেশ্যে তৃতীয় ব্যক্তি ক খ-এর হাতে একটি ছোরা দেয়। ছোরাটি দিয়ে খ চ-কে হত্যা করে। এখানে খ হয়ত শুধু শাস্তি যোগ্য নরহত্যা করেছে, কিন্তু ক খুনের অপরাধে দোষী। [Z strikes B. B is by this provocation excited to violent rage. A, a by stander, intending to take advantage of B’s rage, and to cause him to kill Z, puts a knife into B’s hand for that purpose. B kills Z with the knife. Here B may have committed only culpable homicide, but A is guilty of murder.]

ব্যতিক্রম ২ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুনের সামিল হবে না, যদি অপরাধী সরল মনে তার আত্মরক্ষার অথবা সম্পত্তি রক্ষার ব্যক্তিগত অধিকার প্রয়োগক্রমে তাকে আইন প্রদত্ত ক্ষমতার সীমা অতিক্রম করে এবং যার বিরুদ্ধে সে এই অধিকার প্রয়োগ করে, কোনোরূপ পূর্ব-পরিকল্পনা ব্যতীত অথবা অনুরূপ অধিকার রক্ষার জন্য যতটুকু ক্ষতিসাধন করা আবশ্যক, তদপেক্ষা বেশি ক্ষতি সাধনের ইচ্ছা ব্যতিরেকে, তার মৃত্যু ঘটায়। [Culpable homicide is not murder if the offender, in the exercise in good faith of the right of private defense of person or property, exceeds the powers given to him by law and causes the death of the person against whom he is exercising such right of defense without premeditation, and without any intention of doing more harm than is necessary for the purpose of such defense.]

উদাহরণ : চ ঘোড়ার চাবুক দিয়ে ক-কে প্রহার করার চেষ্টা করে। সে এমনভাবে প্রহার করতে চাহে, যাতে ক-এর শরীরে কোনোরূপ মারাত্মক জখম না হয়। ক একটি পিস্তল নিয়ে আস্ফালন করে চ তবুও তাকে প্রহার করার চেষ্টা করে। অপর কোনোভাবে প্রহার হতে আতœরক্ষা করার উপায় নাই বলে সরল মনে বিশ্বাস করে ক গুলি করে চ-কে হত্যা করে। ক খুন করে নাই, শুধু শাস্তিযোগ্য নরহত্যা ঘটিয়েছে। [Z attempts to horsewhip A, not in such a manner as to cause grievous hurt to A. A draws out a pistol. Z persists in the assault. A believing in good faith that can by no other means prevent himself from being horsewhipped, shoots Z dead. A has not committed murder, but only culpable homicide.]

ব্যতিক্রম ৩ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুনের সামিল হবে না, যদি দোষী একজন সরকারি কর্মচারী হিসেবে অথবা সরকারি কর্মচারীর সহায়তাকারী হিসেবে তাকে প্রদত্ত আইনানুগ ক্ষমতার সীমা অতিক্রম করে এবং এমন একটি কাজ সম্পাদন করে মৃত্যু ঘটায়, যা সে অনুরূপ সরকারি কর্মচারীর দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে সম্পাদন করার জন্য আবশ্যকীয় ও আইনসম্মত বলে সরল মনে বিশ্বাস করে এবং সে ব্যক্তির মৃত্যু ঘটলে তার প্রতি কোনোরূপ দুরভিসন্ধি ছাড়াই কার্যটি করে।[Culpable homicide is not murder if the offender, being a public servant or aiding a public servant acting for the advancement of public justice, exceeds the powers given to him by law, and causes death by doing an act which he, in good faith, believes to be lawful and necessary for the due discharge of his duty as such public servant and without ill-will towards the person whose death is caused.]

ব্যতিক্রম ৪ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুনের সামিল হবে না, যদি অপরাধটি কোনো আকস্মিক বিবাদের সময় আকস্মিক উত্তেজনার কারণে কোনোরূপ পূর্ব পরিকল্পনা ছাড়াই সংঘটিত হয় এবং অপরাধী কোনো অন্যায় সুযোগ গ্রহণ না করে থাকে অথবা নিষ্ঠুরভাবে বা অস্বাভাবিকভাবে কার্য না করে থাকে। [Culpable homicide is not murder if it is committed without premeditation in a sudden fight in the heat of passion upon a sudden quarrel and without the offender’s having taken undue advantage or acted in a cruel or unusual manner.]

ব্যাখ্যা : এইরূপ ক্ষেত্রে কোনো পক্ষ প্রথম উস্কানি দেয় বা প্রথম আঘাত করে, তা আদৌ গুরুত্বপূর্ণ নয়। [It is immaterial in such cases which party offers the provocation or commits the first assault.]

ব্যতিক্রম ৫ : শাস্তিযোগ্য নরহত্যা খুনের সামিল হবে না, যদি সে ব্যক্তির মৃত্যু হয়, সে ব্যক্তি আঠারো বৎসরের উর্ধ্ব বয়স্ক হলে স্বেচ্ছায় স্বীয় সম্মতিক্রমে মৃত্যুবরণ করে বা মৃত্যুর ঝুঁকি গ্রহণ করে।[Culpable homicide is not murder when the person whose death is caused, being above the age of eighteen years, suffers death or takes the risk of death with his own consent.]

উদাহরণ : ক প্ররোচনা দিয়া, ইচ্ছাকৃতভাবে চ-কে আত্মহত্যা করতে প্ররোচনা করে, চ-এর বয়স আঠারো বৎসর অপেক্ষা কম। এক্ষেত্রে চ অপ্রাপ্ত বয়স্কতা হেতু তার নিজের মৃত্যুকে সম্মতি দানে অপারগ ছিলো; সুতরাং ক খুনের অপরাধ সংঘটনে সহায়তা বা প্ররোচনা দান করেছে। [A, by instigation, voluntarily causes Z, a person under eighteen years of age, to commit suicide. Here, on account of Z’s youth, he was incapable of giving consent to his own death; A has therefore abetted murder.]

বিগত সালের প্রশ্নসমূহ

প্রশ্ন নং : ৯
অপরাধমূলক নরহত্যা কী? হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নরহত্যা ও হত্যার পর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যার পার্থক্য কি? সংশ্লিষ্ট আইন এর বিধান বিশ্লেষণপূর্বক উত্তর দিন। [বার : ২০০৯]

প্রশ্ন নং : ১০
দণ্ডবিধির ২৯৯ ও ৩০০ ধারাসমূহে সংজ্ঞায়িত অপরাধসমূহের মধ্যে প্রধান পার্থক্যগুলো উদাহরণসহ আলোচনা করুন। [বার : ২০০৮, ডিসেম্বর + বার : ২০১০ + বার : ২০১২ + বার : ২০১৫]

প্রশ্ন নং : ১১
চুরি করার উদ্দেশ্যে ‘ক’ একটি হাঁসের প্রতি গুলি ছুঁড়লো। উক্ত গুলি লেগে ঝোঁপের আড়াঁলে থাকা ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটল। ‘ক’ জানতো না যে, ‘খ’ ঝোঁপের আঁড়ালে ছিল। এই ঘটনায় ক কোনো অপরাধ করেছে কিনা তা আলোচনা করুন।

প্রশ্ন নং : ১২
ক. কোন কোন পরিস্থিতিতে অপরাধমূলক নরহত্যা কখনও খুন কখনও খুন নয় হিসেবে গণ্য হবে? [ জুডি. : ২০১৩]
খ. ‘ক’ ‘খ’ এর সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়েই তলপেটে নাথি দেয়। ফলে ‘খ’ এর তাৎক্ষণিক মৃত্যু ঘটে। ‘ক’- কি কোনো অপরাধ করেছে? এরূপ অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি কী হবে? [জুডি. : ২০১৩]

প্রশ্ন নং : ১৩
‘জ’ নামক একজন ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ‘ক’ স্বাক্ষী হিসেবে উপস্থিত হয়। ‘জ’ বলে যে, ‘ক’ এর সাক্ষ্যের একটি শব্দও সে বিশ্বাস করে না এবং ‘ক’ স্বয়ং মিথ্যা সাক্ষ্য প্রদানকারী। উক্ত বক্তব্যের দ্বারা ‘ক’ হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে পড়ে এবং ‘জ’ কে হত্যা করে। ‘ক’ কী ধরনের অপরাধ করেছে? [জুডি. : ২০১৪] 

প্রশ্ন নং : ৯
অপরাধমূলক নরহত্যা কী? হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নরহত্যা ও হত্যার পর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যার পার্থক্য কি? সংশ্লিষ্ট আইন এর বিধান বিশ্লেষণপূর্বক উত্তর দিন। [বার : ২০০৯]

৯ নং প্রশ্নের উত্তর
দণ্ডবিধিতে বর্ণিত অপরাধমূলক নরহত্যা বা Culpable homicide ২৯৯ ধারার বিষয়বস্তু হলেও এটিকে অন্যান্য ধারা ও ধারণার সাথে সম্পর্কিত করে বুঝে নিতে হয়। দণ্ডবিধিতে বেশ কয়েক রকমের নরহত্যা (homicide) এর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। সেগুলো থেকে পৃথক করার জন্যই অপরাধমূলক বা নিন্দনীয় (Culpable) হত্যা আলাদা করা হয়েছে।

অপরাধমূলক নরহত্যাকে বা Culpable homicide বোঝার সুবিধার্থে ফলে আমরা দেখে নিতে পারি যে অপরাধমূলক নয় এমন নরহত্যা বা Non-Culpable homicide বলতে কোনগুলোকে বোঝায়। দণ্ডবিধির চতুর্থ অধ্যায়ে বর্ণিত সাধারণ ব্যতিক্রমের আওতাধীন ধারাগুলোতে খেয়াল করলে দেখা যাবে যে, সেখানেও হত্যা সংক্রান্ত বেশ কিছু ধারা আছে, যেগুলো কিনা অপরাধমূলক নয় এমন নরহত্যা বা Non-Culpable homicide। মূল আলোচনায় যাবার সুবিধার্থে সেগুলোর সংক্ষিপ্ত পরিচয় প্রকারভেদ আকারে তুলে ধরা হলো।

১. অপরাধমূলক নয় এমন নরহত্যা [Non-Culpable homicide] :

ক. সমর্থনযোগ্য নরহত্যা [Justifiable homicide]

খ. মাফযোগ্য নরহত্যা [Excusable homicide]

২. অপরাধমূলক নরহত্যা[Culpable homicide] :

ক. অপরাধমূলক নরহত্যা যা কিনা খুন নয় [৩০০ ধারা]

খ. অপরাধমূলক নরহত্যা যা কিনা খুন [৩০০ ধারা]

গ. উদ্দিষ্ট ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কোনো ব্যক্তিকে অপরাধমূলক নরহত্যা [৩০১ ধারা]

ঘ. অবহেলামূলক নরহত্যা [৩০৪ক ও ৩০৪খ]

ঙ. আত্মহত্যায় অপসহায়তা করে নরহত্যা [৩০৫ ও ৩০৬]

উপরোক্ত প্রকারভেদসমূহ বিবেচনায় নিলে দেখা যায় যে, দণ্ডবিধির ২৯৯ ধারায় সংজ্ঞায়িত অপরাধমূলক নরহত্যা মূলত কোন ধরনের নরহত্যাগুলো অপরাধমূলক সেটিকে নির্দেশ করেছে এবং এ সংক্রান্তে এটি একটি পরিচিতিমূলক ধারা। এই অপরাধমূলক নরহত্যা কখন খুন বলে গণ্য হবে এবং কখন এটি খুন বলে গণ্য হবে না, তার বিস্তারিত পাওয়া যায় দণ্ডবিধির ৩০০ ধারায়।

আইন গ্রন্থ লেখকগণের ভেতর অবিসংবাদিত লেখক শ্রদ্ধেয় গাজী শামসুর রহমানের বর্ণনামতে ২৯৯ ধারাটির আবশ্যিক উপাদানসমূহ নিম্নরূপ –

১. মৃত্যু ঘটানো
২. কোনো কাজের দ্বারা
৩. মৃত্যু ঘটানোর অভিপ্রায় দ্বারা; অথবা
৪. এমন দৈহিক জখম ঘটানোর অভিপ্রায় যাতে মৃত্যু ঘটার সম্ভাবনা থাকে; অথবা
৫. কোনো কাজ দ্বারা মৃত্যু ঘটতে পারে সেটি জ্ঞাত থাকা।

উপরোক্ত উপাদানসমূহের উপস্থিতিতে কোনো কাজের মাধ্যমে কারো মৃত্যু ঘটালে তা অপরাধমূলক নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

২৯৯ ধারাটিতে তিনটি ব্যাখ্যা রয়েছে, যার মাধ্যমে অপরাধমূলক নরহত্যার ধারণাকে আরো বিস্তৃত করা হয়েছে। যথা :

১. রোগগ্রস্থ মানুষের উপর আঘাত হেনে মৃত্যুকে ত্বরান্বিত করলে সেটিও অপরাধমূলক নরহত্যা বলে গণ্য হবে।
২. যেকোনো জখম যা কিনা চিকিৎসায় নিরাময় হতে পারে, এরূপ ক্ষেত্রেও কারো মৃত্যু হলে সেটিও এই ধারার অধীন অপরাধমূলক নরহত্যা বলে গণ্য হবে।
৩. কোনো শিশু মাতৃগর্ভ হতে আংশিকভাবে জীবন্ত ভুমিষ্ঠ হলে এবং তার মৃত্যু ঘটালে সেটিও অপরাধমূলক নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নরহত্যা ও হত্যার পর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যার পার্থক্য 

দণ্ডবিধির ২৯৯ ও ৩০০ ধারায় বর্ণিত বিষয়গুলো একত্রে বিবেচনা করলে এবং ধারা ৩০০ এর অধীন আলোচিত ব্যতিক্রম পড়লে দণ্ডনীয় নরহত্যার বৈশিষ্ট্য হিসেবে দেখা যায় যে, সামান্য কিছু বৈশিষ্ট্যের অনুপস্থিতির জন্য সকল দণ্ডনীয় নরহত্যা, হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত হয় না। বস্তুতপক্ষে, অপরাধমূলক নরহত্যা বা Culpable homicide দণ্ডবিধির অপরাধগুলোর ভেতরে একটি নির্দিষ্ট অপরাধ, কিন্তু তারই একটি শাখা হলো খুন বা murder। অন্যভাবে বলা যায় যে, এর দুইটি সুনির্দিষ্ট শাখা হলো নিম্নরূপ –
১. হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা  [Culpable homicide amounting to murder] ও 
২. হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা [Culpable homicide not amounting to murder]

বিখ্যাত রেগ বনাম গোবিন্দ (১৮৭৬) আই.এল.আর ১, বোম্বে ৩৪২ মামলার রায়ে বিচারপতি মেলভিল জে কর্তৃক বর্ণিত পার্থক্যসহ প্রশ্নে জিজ্ঞাসিত এই দুইটির পার্থক্য নিচে সংক্ষেপে বর্ণনা করা হলো –

১. সকল খুন নিন্দনীয় নরহত্যা কিন্তু সকল নিন্দনীয় নরহত্যাই খুন নয় : ক্রিমিনাল ল জার্নাল, ১৯৭২ এর [এআইআর (ইন্ডিয়া) কর্তৃক প্রকাশিত] জার্নালে এই দুইটি ধারণার পার্থক্য সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, ‘‘Every murder is culpable homicide, but not vice versa.’’

২. অভিপ্রায় : হত্যা করার উদ্দেশ্যবিহীন বা অভিপ্রায়হীনভাবে যদি কারও মৃত্যু ঘটানো হয় তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দনীয় নরহত্যা নয়। যদি হত্যার অভিপ্রায় নিয়েই কাউকে মেরে ফেলা হয় তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দীয় নরহত্যা হবে।

৩. মৃত্যুর নিশ্চয়তা : অভিযুক্ত ব্যক্তি যদি এমন দৈহিক আঘাত করে যাতে ঐ ব্যক্তির মৃত্যুর সম্ভাবনা আছে (Likely to cause death) তবে, তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয়, এমন নিন্দনীয় নরহত্যা হবে। কিন্তু, যদি আঘাতটি ঐ ব্যক্তির মৃত্যু ঘটানোর জন্য যথেষ্ট  (Sufficient to Cause death) হয়, তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দনীয় নরহত্যা।

৪. জেনে-শুনে আঘাত করা : যদি পরিবেশ-পরিস্থিতি এমন হয় যে, অভিযুক্ত ব্যক্তি জানত না যে, তার প্রদত্ত দৈহিক জখম মৃত্যু  ঘটাতে পারে তবে তিনি হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন নিন্দনীয় নরহত্যা দায়ে দোষী হবেন। কিন্তু যদি পরিবেশ-পরিস্থিতি এমন হয় যে, অভিযুক্ত ব্যক্তি জানত যে, তার প্রদত্ত দৈহিক জখম ব্যক্তিটির মৃত্যু ঘটাতে পারে, তবে তিনি হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দনীয় নরহত্যা করেছেন বলে গণ্য হবে।

৫. আঘাতের ধরণ : যদি আঘাতের ধরণ এমন হয় যে, আঘাতটি মৃত্যু ঘটাতে পারে বা নাও ঘটাতে পারে তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন নিন্দনীয় নরহত্যা। আবার, যদি আঘাতের ধরণ এমন হয় যে, আঘাতটি মৃত্যু ঘটাবেই তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দনীয় নরহত্যা হবে।

৬. উত্তেজনাবশত বা উস্কানির [Provocation] কারণে কৃত কার্য : কারো দ্বারা আকস্মিক উস্কানির বা প্ররোচনার ফলে উক্ত প্ররোচনাকারীকে, অভিযুক্ত ব্যক্তি তার নিজ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মৃত্যু ঘটালে সেটি হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অপরদিকে, কোনো প্ররোচনা ছাড়াই যদি ইচ্ছাকৃতভাবে কারো মৃত্যু ঘটানোর উদ্দেশ্য নিয়ে মৃত্যু ঘটানো হয় তাহলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

৭. আত্মরক্ষার অধিকারের সীমা অতিক্রম করা সংক্রান্তে পার্থক্য : আত্মরক্ষার অধিকারের সীমা, বিশেষত যখন কিনা এক্ষেত্রে কাউকে হত্যা করা যায়না, সেরূপ ক্ষেত্রে যতটুকু ক্ষতিসাধন করা যায় তার অপেক্ষা বেশি অধিকার প্রয়োগ করে পূর্ব পরিকল্পনা ব্যতীত কারো মৃত্যু ঘটানো হলে, তখন তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অপরদিকে, আত্মরক্ষার অধিকার প্রয়োগ ব্যতীত ইচ্ছাকৃতভাবে কারো মৃত্যু ঘটানো হলে তখন তাকে হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য করা হয়।

৮. আইনানুগ ক্ষমতার অতিরিক্ত ক্ষমতা প্রয়োগের ক্ষেত্রে : কোনো সরকারী কর্মচারী যদি তাকে প্রদত্ত ক্ষমতার সীমা অতিক্রম করে সরল মনে এবং দুরভিসন্ধি ছাড়াই [without ill-will] কারো মৃত্যু ঘটায় তাহলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা। কিন্তু, যদি এর ব্যতয় ঘটে তাহলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা।

৯. পূর্বপরিকল্পনার উপস্থিতি-অনুপস্থিতি : পূর্বপরিকল্পনা ছাড়াই যদি আকস্মিক বিবাদের সময় উত্তেজনার কারণে এবং কোনো অন্যায় সুযোগ [Undue advantage] গ্রহণ না করে কারো মৃত্যু সংঘটিত হয় সেক্ষেত্রে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। কিন্তু, যদি  সেখানে পূর্ব-পরিকল্পনামাফিক এমন হত্যা সংঘটিত হতো, তবে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

১০. আঠারো বছরের ঊর্দ্ধে ব্যক্তির সম্মতির প্রসঙ্গ : আঠারো বছরের বেশি বয়সী কেউ সম্মতিক্রমে মৃত্যুর ঝুঁকি গ্রহণ করলে; যেমন, ইচ্ছাকৃতভাবে তাকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করে মৃত্যু ঘটালে তখন তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অন্যদিকে, উক্ত ভিকটিমের বয়স আঠারো এর কম হলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

১১. শাস্তির ক্ষেত্রে পার্থক্য : দণ্ডবিধির ধারা ৩০৪ অনুসারে হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন নিন্দনীয় নরহত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা দশ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড। অন্যদিকে, আবার দণ্ডবিধির ধারা ৩০২ অনুযায়ী, হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নিন্দনীয় নরহত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডপরিশেষে একটি উদাহরণের মাধ্যমে এই দুইটির পার্থক্য স্পষ্ট করা হলো।

উদাহরণ : যদি ক একটি ধারালো ছুরি দিয়ে খ এর মাথায় আঘাত করে মৃত্যু ঘটায় তবে তা খুন বা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা। [Culpabale homicide amounting to murder] অপরপক্ষে ক যদি একটি লাঠি দিয়ে খ মাথা ফাটিয়ে দেয় এবং এর ফলে খ এর মৃত্যু ঘটে তবে এখানে ক হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যার জন্য [Culpabale homicide not amounting to murder] দায়ী হবে। প্রথম ক্ষেত্রে আঘাতের প্রকৃতি এবং আঘাত করার অস্ত্রই এমন ছিলো যে, মৃত্যু ঘটাবেই বা মৃত্যু ঘটানোর পক্ষে খুবই স্বাভাবিক; যা কিনা দ্বিতীয় ক্ষেত্রে ছিলো না বা অনুপস্থিত।

এই প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কে নির্দেশনা
১. এই প্রশ্নের প্রথম অংশে ৩৬৬টি শব্দ আছে; অন্যদিকে দ্বিতীয় অংশে ৭৬৩টি শব্দ আছে। দুইটি মিলে ১১২৯টি শব্দ আছে। আমাদের প্রত্যাশিত উত্তর থেকে এটি অনেক বড়! এক্ষেত্রে, আমাদের মনে হয় প্রশ্ন হিসেবে সম্ভবত শুধুই দ্বিতীয় অংশটিই আসবে। তবুও যদি প্রথম অংশসহ হুবহু আসে সেক্ষেত্রে এই উত্তরটি পরিহার করা ভালো। আর যদি লিখতেই হয় – তাহলে অন্য প্রশ্নের উত্তরের ক্ষেত্রে যদি সময় কিছু কিছু করে বাঁচাতে পারেন তাহলে এই প্রশ্নের জন্য ৩৬ মিনিটের জায়গায় ৬০ মিনিট বা এক ঘণ্টা বরাদ্দ রাখা উচিত হবে।

২. ৬০ মিনিট বরাদ্দ করতে একটু কষ্ট হলেও মনে রাখবেন, এই প্রশ্নের উত্তরটি বাজারের যেকোনো বই থেকে শুদ্ধ এবং পারফেক্ট। আরো কনফিডেন্স ডেভেলপ করতে ১০ নং প্রশ্নটির নির্দেশনা অংশ পড়ে নিন।

৩. আরো অনেক কথা আছে এই উত্তর সম্পর্কে। কিন্তু, এ বছরে রাশিফল নাকি আমার ভালো না! কারো পায়ে পাড়া দিতে নিষেধ আছে! 🙂


প্রশ্ন নং : ১০
দণ্ডবিধির ২৯৯ ও ৩০০ ধারাসমূহে সংজ্ঞায়িত অপরাধসমূহের মধ্যে প্রধান পার্থক্যগুলো উদাহরণসহ আলোচনা করুন। [বার : ২০০৮, ডিসেম্বর + বার : ২০১০ + বার : ২০১২ + বার : ২০১৫]

১০ নং প্রশ্নের উত্তর
[এই উত্তরটি পূর্বতন ৯ নং প্রশ্নের অনুসারেই লিখতে হবে, যেখানে হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নরহত্যা এবং হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যার পার্থক্য বর্ণিত আছে, সেই অংশটুকু। কিন্তু সে সম্পর্কে নিচের নির্দেশনা প্রপারলি দেখে যাবেন অবশ্যই।]

এই প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কে বিশেষ নির্দেশনা
১. প্রশ্নটি সম্পর্কে : বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় আসা এই প্রশ্নটি এবারের সাজেশন হিসেবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু, এই প্রশ্নটি ৯ নং প্রশ্নের আদলে আসে তাহলে সেভাবেই লিখতে হবে যা, ৯ নং প্রশ্নের উত্তরে বলা হয়েছে। কিন্তু, উপরোক্ত ১০ নং প্রশ্নের আকারে এলে আরেকটু ভিন্নভাবে বিষয়টিকে ঘুরিয়ে ৯ নং প্রশ্নের উত্তরের ভাষায় রূপান্তর করে নিতে হবে। কার্যত, ২৯৯ ও ৩০০ ধারার পার্থক্য আসলে কোনো বিবেচ্য বিষয় হতে পারে না। একমাত্র বিবেচ্য বিষয় হতে পারে যে, নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন এবং নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন নয় – এর মাঝে পার্থক্য করা। কেন?!

কেননা, ২৯৯ ধারা মূলত জীবন সম্পর্কে বা জীবননাশ সম্পর্কে একটি পরিচিতিমূলক ধারা। ২৯৯ ধারার শিরোনাম ‘নিন্দনীয় নরহত্যা’ বা Culpabale Homicide হলেও এই ধারায় যেটুকুই বর্ণিত আছে তার সবই এমন ধরনের নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন [Culpabale homicide amounting to murder] বলে পরিগণিত হয়। অপরদিকে, ‘খুন’ বা murder শিরোনামে মূলত শুরুতে খুন বলে গণ্য হবে এমন নরহত্যার বর্ণনা আছে শুরুতেই এবং একইসাথে ‘খুন’ এর ব্যতিক্রম হিসেবে ৫টি ক্ষেত্রের কথা সরাসরি উল্লেখে বলা হয়েছে যে, নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন হিসেবে বিবেচিত হবে না [Culpabale homicide not amounting to murder]-  তার কথা।

ফলে, দেখা যায় যে, নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন [Culpabale homicide amounting to murder] হিসেবে বিবেচিত হবে এবং নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন হিসেবে বিবেচিত হবে না [Culpabale homicide not amounting to murder]- এই দুইটি প্রকারের প্রকৃত বা আসল বর্ণনা মূলত ৩০০ ধারাতেই দেওয়া আছে; অন্যদিকে ২৯৯ ধারায় শুধুই ‘নিন্দনীয় নরহত্যা’ শিরোনামে যা বলা আছে তা মূলত অন্যান্য নরহত্যা  (যেমন, আত্মরক্ষার অধিকার প্রয়োগ বা অন্যান্য আইন অনুমোদিত নরহত্যা – আমি এগুলোকে [Non-Culpabale Homicide] বলে অভিহিত করেছি) থেকে পৃথক করার জন্য একটি পরিচিতিমূলক, প্রাথমিক বর্ণনার ধারা মাত্র! এমনকি খেয়াল করলে দেখবেন যে, ২৯৯ ধারায় যা বলা আছে তার সবই মূলত ‘খুন’ তথা এমন ধরনের নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন বলে গণ্য হবে!

একারণে, ২৯৯ ও ৩০০ ধারার পার্থক্য জিজ্ঞাসা করা কোনো প্রশ্ন সরাসরি ২৯৯ ও ৩০০ ধারার পার্থক্য বলে উল্লেখ করে উত্তর করা যাবে না। এই বেসিক ব্যাপারটা প্রায় সব বইয়ে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা আছে। প্রথমে, ২৯৯ ও ৩০০ ধারার পরিচয় তুলে ধরে কোথায় কি বিষয় বিধৃত আছে সেটিকে নির্দেশ করে বলতে হবে যে, এটিতে সংজ্ঞায়িত বা বিধৃত অপরাধসমূহের মূলত নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন এবং নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন নয় – এই দুইটির পার্থক্য নিচে আলোচনা করা হলো … – এভাবে!

২. তাহলে এই প্রশ্নের ক্ষেত্রে স্পেসিফিক করণীয় কী? : বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় এই প্রশ্ন এলে করণীয় হলো –
প্রথমত, ২৯৯ ও ৩০০ ধারার বিষয়বস্তু ব্যাখ্যা করে [কমবেশি উপরোক্ত ১ নং পয়েন্টের যুক্তিবিন্যাস অনুসারে বর্ণনা দেবেন] বিষয়টিকে এখানে টেনে আনতে হবে যে, মূলত ২৯৯ ও ৩০০ ধারার পার্থক্য জানতে চাওয়ার মধ্যে দিয়ে এটাই জানতে চাওয়া হয়েছে যে, দণ্ডবিধির নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন এবং নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন নয় – এই দুইটির পার্থক্য।

দ্বিতীয়ত, এই বইয়ের দণ্ডবিধি অংশে ৯ নং প্রশ্নের উত্তরের পার্থক্য অংশটুকু পুরোটা লিখে দিলেই চলবে।

৩. শব্দসংখ্যা বা অন্যান্য বিষয়ে ৯ নং প্রশ্নেই নির্দেশনা দেওয়া আছে, পড়ে নিন।

প্রশ্ন নং : ১১
চুরি করার উদ্দেশ্যে ‘ক’ একটি হাঁসের প্রতি গুলি ছুঁড়লো। উক্ত গুলি লেগে ঝোঁপের আড়াঁলে থাকা ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটল। ‘ক’ জানতো না যে, ‘খ’ ঝোঁপের আঁড়ালে ছিল। এই ঘটনায় ক কোনো অপরাধ করেছে কিনা তা আলোচনা করুন।

১১ নং প্রশ্নের উত্তর
‘ক’ চুরি করার উদ্দেশ্যে ‘ক’ হাঁসের প্রতি গুলি ছোঁড়ে। সেই গুলি লেগে ঝোঁপের আড়ালে থাকা ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটে। এ ঘটনাটি দণ্ডবিধির ২৯৯ ধারায় গ নং উদাহরণে বলা আছে। উদাহরণে বিবৃত ঘটনাটি দণ্ডনীয় নরহত্যা বা খুন নয়। আদতে, এটি কোনো অপরাধই নয়।

কোনো ফৌজদারি অপরাধ অনুষ্ঠিত হতে গেলে সেখানে অবশ্যই তিনটি অপরিহার্য উপাদানের প্রয়োজন পড়ে। সেগুলোর নিরিখে আমরা আলোচ্য ঘটনাটি বিশ্লেষণ করতে পারি। অপরাধের অপরিহার্য তিনটি উপাদানসমূহ হলো –

ক. Actus rea  : কোনো অর্থাৎ কোনো কার্য করতে হবে [দণ্ডবিধির ৩৩ ধারা অনুসারে কোনো কার্যবিরতিও [Omission] এর অন্তর্ভুক্ত হবে]।

খ. Mens rea (Guilty mind or criminal intent ) : কার্য বা কার্যবিরতির পেছনে অবশ্যই একটি দোষী মন বা অপরাধমূলক মন থাকতে হবে।

গ. দেশের বিদ্যমান আইন অনুসারে তা একটি অপরাধ বলে গণ্য হতে হবে।

উপরোক্ত তিনটির একইসাথে উপস্থিতি থাকতে হবে একটি অপরাধ সংঘটনে। এর যেকোনোটির অনুপস্থিতি কোনো ঘটনাকে অপরাধ বলে স্বীকৃত করবে না।

প্রশ্নে বর্ণিত ঘটনাটিতে, ‘ক’ হাঁস মারতে চেয়েছিল যা একটি অপরাধ হতে পারে। কিন্তু, ঘটনাক্রমে ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটে, কিন্তু ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটানোর মত দোষী মন [Guilty mind] বা উদ্দেশ্য ছিল না বা ‘ক’ এর। উপরন্তু, ক জানতোই না যে, ঝোপের আড়ালে খ ছিলো। যেহেতু, তার উদ্দেশ্য সম্পূর্ণ ভিন্ন ছিল, সুতরাং তার মৃত্যুর জন্য ক-কে দোষী করা যাবে না। বাস্তবিকপক্ষে, এক্ষেত্রে নরহত্যা সংক্রান্ত কোনো অপরাধ ঘটেনি।

এই প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কে নির্দেশনা
১. জুডিসিয়ারিতে আসা এই প্রশ্নটির উত্তর বিভিন্ন জুডিসিয়ারির বইয়ে অত্যন্ত ভুলভাবে দেওয়া আছে যে, এটি একটি নিন্দনীয় নরহত্যার অপরাধ। অথচ, ২৯৯ ধারার গ নং উদাহরণে [হাঁসের বদলে মুরগির উদাহরণ দিয়ে] এটি পরিষ্কারভাবে বলা আছে যে, এটি নিন্দনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে না।
২. কিন্তু, ইন্টারেস্টিংলি এটি ২৯৯ ধারার উদাহরণে থাকলেও এটির উত্তর করার সময় আমাদেরকে বিবেচনায় নিতে হবে অপরাধের আবশ্যিক উপাদান কী কী এবং তার নিরিখেই এটিকে বিশ্লেষণ করা। তবুও, ২৯৯ ধারার উদাহরণ বিধায় এই প্রশ্নটি আমরা ২৯৯ ও ৩০০ ধারার টপিকের অন্তর্ভুক্ত বলে গণ্য করে উত্তরটি এখানে রেখেছি।
৩. এই প্রশ্নে ২০৭টি শব্দ আছে। একদম ফিট। এটি কোনো না কোনো প্রশ্নের লেজ হিসেবেই আসবে বলে আশা করি আমরা।


প্রশ্ন নং : ১২
ক. কোন কোন পরিস্থিতিতে অপরাধমূলক নরহত্যা কখনও খুন কখনও খুন নয় হিসেবে গণ্য হবে? [ জুডি. : ২০১৩]
খ. ‘ক’ ‘খ’ এর সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তলপেটে লাথি দেয়। ফলে ‘খ’ এর তাৎক্ষণিক মৃত্যু ঘটে। ‘ক’- কি কোনো অপরাধ করেছে? এরূপ অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি কী হবে? [জুডি. :২০১৩]

১২(ক) নং প্রশ্নের উত্তর
দণ্ডবিধির ভাষ্যে, কেউ যদি কোনো কার্য বা কার্যবিরতি দ্বারা কারও মৃত্যু ঘটায় তাকে নরহত্যা বলা হয়। দণ্ডবিধিতে বর্ণিত সমস্ত হত্যা বা নরহত্যা বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে, এটি দুইরকমের হয় প্রধানত।

১. বৈধ নরহত্যা (Non-culpable homicide), এবং

২. অবৈধ বা অপরাধমূলক (Culpable homicide)।

দণ্ডবিধির ২৯৯ ধারায় সংজ্ঞায়িত অপরাধমূলক নরহত্যা মূলত কোন ধরনের নরহত্যাগুলো অপরাধমূলক সেটিকে নির্দেশ করেছে এবং এ সংক্রান্তে এটি একটি পরিচিতিমূলক ধারা। এই অপরাধমূলক নরহত্যা কখন খুন বলে গণ্য হবে এবং কখন এটি খুন বলে গণ্য হবে না, তার বিস্তারিত পাওয়া যায় দণ্ডবিধির ৩০০ ধারায়।

মূলত ৩০০ ধারাটি পাঠ করলে বোঝা যায় যে, ৪টি মানসিক অবস্থা বিদ্যমান থাকা অবস্থায় কোনো কার্যের মাধ্যমে মৃত্যু ঘটালে তা হত্যার পর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা হিসেবে গণ্য হবে। মানসিক অবস্থাগুলো হচ্ছে-

১. অভিপ্রায় : মৃত্যু ঘটানোর অভিপ্রায়েই যদি এমন কোনো কার্য করা হয় যার ফলে মৃত্যু ঘটে।
২. জ্ঞান : কৃত কার্য বা আঘাতটির ফলে মৃত্যু নিশ্চিত, এ বিষয়টি যদি অপরাধীর জানা থাকে বা জ্ঞান থাকে।
৩. আঘাতের ধরণ : কৃত কার্য বা আঘাতের ধরনই যদি এমন হয় যে,  মৃত্যু নিশ্চিত বা মৃত্যু ঘটানোর জন্য যথেষ্ট হয় এবং এমন অভিসন্ধি যদি থাকে।
৪. মৃত্যু ঘটানোর জন্য : কৃত কার্যটি যদি এমন আশু বিপদজনক হয় যে,  একজনের মৃত্যু ঘটাবেই তা অতি নিশ্চিত অথবা এমন আঘাত যা তার মৃত্যু ঘটাবেই।

উপরোক্ত ৪টি ক্ষেত্রে কোনো কার্যের মাধ্যমে কারো মৃত্যু ঘটানো হলে বা কাউকে হত্যা করা হলে সেটিকে খুন বলে গণ্য করা হবে। খুন বলে গণ্য হওয়া প্রতিটি হত্যা মূলত এমন ধরনের অপরাধমূলক নরহত্যা যা কিনা খুন [Culpable homicide amounting to murder] বলে গণ্য হয়।

অপরাধমূলক নরহত্যা কিছু শর্তের উপস্থিতি অনুপস্থিতির উপর ভিত্তি করে কখনও খুন এর পর্যায়ভুক্ত হয়, আবার কখনও খুন এর পর্যায়ভুক্ত হয় না।  ৩০০ ধারায় শুরুতেই উপরোক্ত ৪টি ক্ষেত্রের খুন হওয়া প্রসঙ্গে বিধৃত করেই কিছু উদাহরণ দিয়ে এরপরে একটি উপশিরোনামে বলা আছে কখন অপরাধমূলক নরহত্যা খুন বলে পরিগণিত হবে না। সেগুলো নিচে সংক্ষেপে বর্ণনা করা হলো।

ক. উত্তেজনাবশত বা উস্কানির [Provocation] কারণে কৃত কার্য : কারো দ্বারা আকস্মিক উস্কানির বা প্ররোচনার ফলে উক্ত প্ররোচনাকারীকে, অভিযুক্ত ব্যক্তি তার নিজ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মৃত্যু ঘটালে সেটি হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অপরদিকে, কোনো প্ররোচনা ছাড়াই যদি ইচ্ছাকৃতভাবে কারো মৃত্যু ঘটানোর উদ্দেশ্য নিয়ে মৃত্যু ঘটানো হয় তাহলে  তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

খ. আত্মরক্ষার অধিকারের সীমা অতিক্রম করে পরিকল্পনাবিহীন নরহত্যা : আত্মরক্ষার অধিকারের সীমা, বিশেষত যখন কিনা এক্ষেত্রে কাউকে হত্যা করা যায়না, সেরূপ ক্ষেত্রে যতটুকু ক্ষতিসাধন করা যায় তার অপেক্ষা বেশি অধিকার প্রয়োগ করে পূর্ব পরিকল্পনা ব্যতীত [without premeditation] কারো মৃত্যু ঘটানো হলে, তখন তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অপরদিকে, আত্মরক্ষার অধিকার প্রয়োগ ব্যতীত ইচ্ছাকৃতভাবে কারো মৃত্যু ঘটানো হলে তখন তাকে হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য করা হয়।

গ. সরল মনে আইনানুগ ক্ষমতার অতিরিক্ত ক্ষমতা প্রয়োগে নরহত্যা : কোনো সরকারী কর্মচারী যদি তাকে প্রদত্ত ক্ষমতার সীমা অতিক্রম করে সরল মনে এবং দুরভিসন্ধি ছাড়াই [without ill-will] কারো মৃত্যু ঘটায় তাহলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা। কিন্তু, যদি এর ব্যতয় ঘটে তাহলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা।

ঘ. আকস্মিক বিবাদের সময় পূর্বপরিকল্পনার ছাড়াই নরহত্যা : পূর্বপরিকল্পনা ছাড়াই যদি আকস্মিক বিবাদের সময় উত্তেজনার কারণে এবং কোনো অন্যায় সুযোগ [Undue advantage] গ্রহণ না করে কারো মৃত্যু সংঘটিত হয় সেক্ষেত্রে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। কিন্তু, যদি  সেখানে পূর্ব-পরিকল্পনামাফিক এমন হত্যা সংঘটিত হলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

ঙ. আঠারো বছরের ঊর্দ্ধে ব্যক্তির সম্মতির প্রসঙ্গ : আঠারো বছরের বেশি বয়সী কেউ সম্মতিক্রমে মৃত্যুর ঝুঁকি গ্রহণ করলে; যেমন, ইচ্ছাকৃতভাবে তাকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করে মৃত্যু ঘটালে তখন তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে। অন্যদিকে, উক্ত ভিকটিমের বয়স আঠারো এর কম হলে তা হত্যার সমপর্যায়ভুক্ত নয় এমন দণ্ডনীয় নরহত্যা বলে গণ্য হবে।

১২(খ) নং প্রশ্নের উত্তর
‘ক’ ‘খ’ এর সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তলপেটে লাথি দেয়। ফলে ‘খ’ এর মৃত্যু ঘটে। ‘ক’ দণ্ডবিধি অনুযায়ী, অপরাধমূলক নরহত্যা যা কিনা খুন নয় [Culpable homicide not amounting murder]- অপরাধ করেছে।

ধারা ৩০০ এর ব্যতিক্রমের অধীন কিছু ব্যতিক্রম এর কথা উল্লেখ করা আছে যার অধীনে কোনো অপরাধমূলক নরহত্যা যা কিনা খুন নয় [Culpable homicide not amounting murder] নয় বলে গণ্য হবে। এসব ব্যতিক্রমের প্রথম প্রথম ব্যতিক্রমে বলা হয়েছে যে, উত্তেজনা বা উষ্কানির ফলে, যদি কেউ নিজেকে নিয়ন্ত্রণ না করতে পেরে মৃত্যু ঘটায় তবে তা খুন এর পর্যায়ভুক্ত হবে না। আবার, চতুর্থ ব্যতিক্রমে বলা হয়েছে যে, পূর্ব পরিকল্পনা ব্যতীত উত্তেজনার বশে কারও মৃত্যু ঘটানো হয় তা খুনের পর্যায়ভুক্ত নয়।

প্রশ্নের ঘটনায়, ‘ক’ আকস্মিক বিবাদে আকস্মিকভাবে আত্মনিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উত্তেজনার ফলে ‘খ’ কে আঘাত করে এবং তার মৃত্যু ঘটে। ‘খ’ এর মৃত্যুটি বিশেষত উক্ত ৩০০ ধারার চতুর্থ ব্যতিক্রমের অধীনে খুন এর পর্যায়ভুক্ত নয় এমন নরহত্যা [Culpable homicide not amounting murder]।

এরূপ অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি দণ্ডবিধির ৩০৪ ধারায় বলা আছে, যার সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড অথবা সর্বোচ্চ ১০ বছরের যেকোনো বর্ণনার কারাদণ্ড এবং তদুপরি অর্থদদণ্ডেও দণ্ডনীয়।

এই প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কে নির্দেশনা
১. এই প্রশ্নের ক অংশের উত্তরে ৫৮৮টি শব্দ আছে এবং খ অংশের উত্তরে ১৭৩টি শব্দ আছে। পরীক্ষার জন্য একেবারে পারফেক্ট; ১৫ নম্বরের প্রশ্নের উত্তরের ক্ষেত্রে।
২. জুডিসিয়ারিতে আসা প্রশ্নটির ধরনে বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় আসতে পারে। সুতরাং, প্রশ্নটির এপ্রোচ বুঝে সঠিকভাবে এভাবে উত্তর লিখলে খুব ভালো হবে।

প্রশ্ন নং : ১৩
‘জ’ নামক একজন ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ‘ক’ স্বাক্ষী হিসেবে উপস্থিত হয়। ‘জ’ বলে যে, ‘ক’ এর সাক্ষ্যের একটি শব্দও সে বিশ্বাস করে না এবং ‘ক’ স্বয়ং মিথ্যা সাক্ষ্য প্রদানকারী। উক্ত বক্তব্যের দ্বারা ‘ক’ হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে পড়ে এবং ‘জ’ কে হত্যা করে। ‘ক’ কী ধরনের অপরাধ করেছে? [জুডি. : ২০১৪]

১৩ নং প্রশ্নের উত্তর
প্রশ্নে বর্ণিত ঘটনাটি খুন[Murder], নাকি নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন নয় [Culpable homicide not amounting to murder] এ সম্পর্কে আলোচনা করা আবশ্যক। প্রশ্নে বর্ণিত ঘটনাটি মূলত ৩০০ ধারার ১ নং ব্যতিক্রমের উদাহরণসমূহের ঘ অংশের উদাহরণ। উক্ত উদাহরণে বলাই আছে যে, এটি খুন [Murder] বলে গণ্য হবে।

উক্ত ১ নং ব্যতিক্রমের সমস্ত তথ্য আলোচ্য প্রশ্নের উত্তরের প্রয়োজনে খানিকটা বিস্তারিত করা যেতে পারে।

৩০০ ধারার ১ নং ব্যতিক্রমের মূল বিষয়বস্তু কোনো আকস্মিক ও মারাত্মক প্ররোচনার [Provocation] ফলে যদি কেউ আত্মনিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে  উক্ত প্ররোচনাকারীর মৃত্যু ঘটায় অথবা ভুলক্রমে অন্য যেকোনো ব্যক্তির মৃত্যু ঘটায় তাহলে তা নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন নয় [Culpable homicide not amounting to murder] বলে গণ্য হবে।

কিন্তু, এটাও খেয়াল রাখতে হবে যে, উপরোক্ত ব্যতিক্রমটি তিনটি শর্তের অধীনে প্রযোজ্য হবে। ধারাতেই বর্ণিত শর্তগুলোর ভেতরে দ্বিতীয় শর্তে বলা আছে যে, আইনানুসারে কৃত কোনো কার্য দ্বারা বা সরকারী কর্মচারীর আইনানুগ ক্ষমতার প্রয়োগসঞ্জাত ঘটনা দ্বারা প্ররোচিত [provoked] হবার অজুহাত দিয়ে এই ব্যতিক্রমের সুযোগ নেওয়া যাবে না। অর্থাৎ, কোনো সরকারী কর্মচারীর কোনো আইনসম্মত কাজের বিরুদ্ধে এই প্ররোচনা দেবার অজুহাত তুলে কোনো ব্যক্তিকে হত্যা করে দাবি করার কোনো সুযোগ নেই যে, উক্ত হত্যাটি একটি খুন [Murder] নয়।

প্রশ্নে বর্ণিত সমস্যাটি আবার এই ধারাতেই উক্ত ১ নং ব্যতিক্রমেরই ঘ নং উদাহরণের সরাসরি বিষয়বস্তু, যেখানে বলা হয়েছে এরূপ ঘটনায় এটি খুন[Murder]।

বস্তুতপক্ষে, এখানে ব্যতিক্রমের দ্বিতীয় শর্তটি মাথায় রেখেই এই ঘটনাটির বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। ব্যতিক্রম, ব্যতিক্রমের শর্ত এবং উদাহরণটি দিয়ে বোঝা যায় যে, এটি খুন বলে গণ্য হবে; তথা ক এখানে খুন করার অপরাধ সংঘটিত করেছে বা অন্যভাবে বলা যায় যে, এটি নিন্দনীয় নরহত্যা যা কিনা খুন বলে গণ্য [Culpable homicide not amounting to murder]।

লিখিত পরীক্ষার জন্য

জ্যুসি ল অনলাইনে প্রস্তুতি নিন, ঘরে বসেই!!
থাকছে লাইভ ভিডিও ক্লাস
খাতা দেখবেন সহকারী জজগণ :: মুরাদ মোর্শেদ স্যার এর গাইডলাইন আর কাউন্সেলিং

দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে!

বিস্তারিত জানতে ফোন দিন :  01712-908561।